Breaking News

‘আমি থানায় গিয়ে নিজের বিয়ে বন্ধ করি’

নিজের বিয়ে বন্ধ করা বর্ষা এখন আলোচনার শীর্ষে। গতকাল বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) তাকে নিয়ে চলেছে দিনভর আলোচনা। সকালে বর্ষা তার স্কুল ঝিনুক মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে আসার আগেই সাংবাদিকরা স্কুলে এসে অবস্থান নেন। সদর থানার অফিসার ইনচার্জ যান বর্ষাকে দেখতে। কালের কণ্ঠ বর্ষার লেখাপড়ার জন্য মাসিক বৃত্তির আয়োজন করে। এসব নিয়েও স্কুল প্রাঙ্গন ছিল উৎসবমূখর। বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীরা বর্ষাকে নিয়ে মেতে থাকেন।

বুধবার সকাল ১১টার দিকে বর্ষা স্কুলে আসে। এসময় শিক্ষার্থীরা ও বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা হাততালি দিয়ে বর্ষাকে স্বাগত জানায়। বর্ষা হাসতে হাসতে স্কুলে আসে। বর্ষা বলেন, ‘আমার বাবার একটি মুদি দোকান আছে। বাবা থাকেন যশোরে। চুয়াডাঙ্গায় থাকেন মা।

মা একটি মুড়ি ফ্যাক্টরিতে কাজ করেন। সংসারে অভাব আছে। মা ও খালা চেয়েছিলেন আমার বিয়ে দিয়ে দিতে। ছেলে দেখা চলছিল। এই বিয়েতে আমার মোটেও সায় ছিল না। এজন্য আমি চেয়েছিলাম, আমার বিয়েটা বন্ধ হয়ে যাক। তাছাড়া আমি নাবালিকা। আমার বয়স ১৬ বছর। আমি আমার বিয়ে বন্ধ করার জন্য নিজেই যাই থানায়। পুলিশের সহযোগিতায় আমার বিয়ে নিয়ে বাড়িতে আলোচনা বন্ধ হয়েছে। আমি লেখাপড়া করতে চাই।’

এদিন সকাল থেকেই বিদ্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন শুভসংঘের সদর উপজেলা শাখার সভাপতি অ্যাডভোকেট বদর উদ্দিন ও সদস্য শেখ লিটন। বর্ষা স্কুলে আসার পরপরই কালের কণ্ঠ শুভসংঘের পক্ষ থেকে বর্ষার হাতে তুলে দেওয়া হয় বৃত্তির টাকা।এর পরপরই বিদ্যালয়ের অফিসকক্ষে শুরু হয় আলোচনা সভা। সভায় সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেবেকা সুলতানা। উপস্থিত ছিলেন সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন। ওসি মোহাম্মদ মহসীনসহ বক্তৃতা করেন সাংবাদিক মানিক আকবর, শাহ আলম সনি, বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক নূরুল ইসলাম, সহকারি শিক্ষক গোলাম মওলা, সাইফুল ইসলাম, আহাদ আলী, এস আই শামিম হাসান প্রমুখ। বর্ষা বলে, আমি আমার বিয়ে বন্ধ করেছি। আমি চাইনা কোনো নাবালিকার বিয়ে হয়ে যাক। ১৮ বছরের নিচে কোনো মেয়ের যেনো বিয়ে না হয়। অভিভাবকরাও যেনো নাবালিকা অবস্থায় লেখাপড়া বন্ধ করে কোনো মেয়ের বিয়ে না দেন। বর্ষার ইচ্ছা, সে লেখাপড়া শিখে সাংবাদিক হবে।

About desk

Check Also

মেহজাবিনের একি হাল!

লিওনা হেইদারন। জাপানের তৈরি ভিডিও গেম। গেমসের লিওনা হেয়দারন একটি কাল্পনিক চরিত্র। নানা চড়াই উতরাই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *