Breaking News

জোড়া লাগানো সেই য’ম’জ শি’শুর মৃ”ত্যু

রোববার (১০ অক্টোবর) বিকেলে উপজেলার সরাইগাছি মোড়ে অবস্থিত ইসলামি ল্যাব অ্যান্ড হাসপাতালে শিশুটি মা’রা যায়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ডা. আহসান হাবিব।
জোড়া লাগা যমজ মেয়ে নবজাতকের মায়ের নাম ফিরোজা বেগম। তিনি উপজেলার গাঙ্গুরিয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী।
এর আগে গত ২ অক্টোবর ইসলামি ল্যাব অ্যান্ড হাসপাতালে সিজারিয়ান অপারেশনে পেট যমজ লাগা ওই শিশুটির জন্ম হয়। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ উন্নত

চিকিৎসার জন্য তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের পরামর্শ দিলে সেদিনই রাজশাহীতে স্থানান্তর করা হয়। কিন্ত আর্থিক স্বচ্ছলতা না থাকায় বিকেলে শিশুর বাবা আবারও ওই হাসপাতালে ফিরে আসেন।
যমজ শিশুটির মা ফিরোজা বেগম বলেন, তাদের দাম্পত্য জীবনে প্রথম যমজ দুই মেয়ে সন্তানের জন্ম হয়। পরম আদর যত্নে তাদের আগলে রেখেছিলাম। আদর করে তাদের নাম রাখা হয়েছিল হালিমা খাতুন ও ফাতেমা খাতুন। কিন্তু আল্লাহ তাদের আর দুনিয়াতে রাখলেন না।

শিশুটির বাবা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমি পেশায় একজন কৃষক। তবে ব্যয়বহুল জানার পরও আমার সন্তানদের অস্ত্রোপচার করার ইচ্ছে ছিল। কিন্তু তার আগেই তারা মা’রা গেল।

About desk

Check Also

প্রকৌশলীর মোটরসাইকেল আটক করায় ট্রাফিক অফিসে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে মোটরসাইকেল ও অন্যান্য যানবাহন চেকিং করছিল ট্রাফিক পুলিশ। সেখানে নর্দার্ন ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *