Breaking News

আদালতে হেফাজত নেতা মামুনুল হক

বোমা বিস্ফোরণ মামলায় হাজিরা দেয়ার জন্য হেফাজত ইসলামের নেতা মাওলানা মামুনুল হককে খুলনার অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতে আনা হয়েছে।
রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) কড়া নিরাপত্তার মধ্যে কারাগার থেকে তাকে আদালতে তোলা হয়। এর আগে শুক্রবার বিকেলে কাশিমপুর কারাগার থেকে তাকে খুলনায় আনা হয়।

এ বিষয়ে খুলনা জেলা কারাগারের জেল সুপার মো. ওমর ফারুক জানান, খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানার একটি মামলায় খুলনা অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতে রোববার হাজিরা দেয়ার জন্য মামুনুল হককে জেলা কারাগারে আনা হয়।২০১৩ সালে খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় তার বিরুদ্ধে বিস্ফোরক আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলায় মামুনুলকে আদালতে হাজির করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি বিকেল সোয়া ৪টার দিকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল বাতিল, গ্রেপ্তার যুদ্ধাপরাধীদের মুক্তি ও সরকারবিরোধী স্লোগান দিয়ে জামায়েতে ইসলামী, বিএনপি ও হেফাজতে ইসলামীসহ ১২ দলের প্রায় তিন হাজার মানুষ মিছিল বের করেন। মিছিলটি নগরীর ডাকবাংলা ও ময়লাপোতা মোড় হয়ে শিববাড়ি মোড়ে গণজাগরণ মঞ্চের দিকে যাচ্ছিল।

ফুজি কালার ল্যাবের সামনে পৌঁছালে পুলিশের বাধার সম্মুখীন হয়। এ সময় অংশগ্রহণকারীরা মিছিল থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল বোমা ও গুলি নিক্ষেপ করতে থাকেন। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে ২০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে। নিক্ষিপ্ত বোমার আঘাতে কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হন।

আহতদের চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মিছিলকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে গেলে সেখান থেকে ২৬ জনকে আটক করে থানায় আনা হয়।
এ ঘটনায় ওই বছরের ২২ ফেব্রুয়ারি খুলনা মহানগর ইমাম পরিষদের কয়েকজন নেতা ও হেফাজত ইসলামীর নেতা মাওলানা মামুনুল হকসহ ২৬ জনের নামে সোনাডাঙ্গা থানায় একটি মামলা করেন উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলমগীর কবীর।

ওই ঘটনার আগের দিন ময়লাপোতা মসজিদ মোড়ে ওয়াজ করার সময় মামুনুল হকসহ অন্যরা সংগঠিত হয়ে পুলিশের ওপর হামলা ও গণজাগরণ মঞ্চ ভাঙচুরসহ পুড়িয়ে দেয়ার জন্য অনুসারিদের নির্দেশ দেন।
তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের ২১ এপ্রিল মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মো. মোক্তার হোসেন মোট ১০৭ জনের নামে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) জমা দেন।

খুলনার অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ এসএম আশিকুর রহমান পূর্ববর্তী একটি কার্য দিবসে মামুনুল হককে রোববার আদালতে উপস্থিত করার জন্য নির্দেশ দেন।

About desk

Check Also

বিয়েবাড়িতে ছবি তোলাকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত ২২

বিয়েবাড়িতে ছবি তোলাকে কেন্দ্র করে কুমিল্লার হোমনা উপজেলার ঘারমোড়া বাজারে দু’দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *