Breaking News

নিজের বাছুরের মতো মা হারা ছাগল ছানাকে দুধ খাইয়ে বড় করছে গাভি

মা হারা ছাগল ছানা ও নিজের বাছুরকে দুধ খাইয়ে বড় করছে একটি গাভি। প্রতিদিন এই দুধ খাওয়ার দৃশ্য দেখতে সেখানে ভিড় করছেন মানুষ। বিষয়টিকে শিক্ষণীয় বলছেন স্থানীয়রা। রংপুরের গংগাচড়া উপজেলার সাংবাদিক ইমদাদুল হকের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে।

উপজেলা সদরের মেডিকেল পাড়ায় সাংবাদিক ইমদাদুল হক মিলনের স্ত্রী মেহেরুন নেছা চায়না একটি গাড়ি ও একটি ছাগল পালন করেন। এরমধ্যে গাভি এবং ছাগল দু’টিই বাচ্চা প্রসব করে। প্রসবের কিছুদিন মা ছাগলটি মারা যায়। নিরুপায় হয়ে গৃহবধূ চায়না ছাগলের বাচ্চাটিকে গাভির দুধ খাওয়ানোর চেষ্টা করেন। সেখানে সফলও হন তিনি। এক সঙ্গে গরুর বাছুর ও ছাগল ছানাকে দুধ দিতে থাকে গাভিটি।

চায়না জানান, জন্মানোর পর থেকেই গরুর বাছুরকে বাহাদুর ও ছাগল ছানাকে রবি নামে ডাকেন তিনি। ওই নামে ডাক দেলেই ছুটে আসে তারা। এছাড়াও গাভিটি একসঙ্গে ছাগল ছানা ও বাছুরকে দুধ দিচ্ছে। ক্ষুধা লাগলে গাভির দুধ খেয়ে নেয় ছাগল ছানা।

তিনি আরো জানান, গাভির দুধ খেয়ে এখন ছাগল বাচ্চাটি বেশ বড় হয়েছে। বয়স প্রায় ৯ মাস। আর গরুর বাছুরটির বয়স প্রায় ১০ মাস। এদের মধ্যে সখ্যতাও বেশ। ঘটনাটি দেখতে প্রতিদিনই সেখানে জড়ো হচ্ছেন মানুষ। তারা বিষয়টিকে ভালোবাসার নিদর্শন হিসেবে দেখছেন। গৃহপালিত জন্তুদের মধ্যে সহানুভূতি দৃশ্যমান। যা গাভিটি আমাদের শিক্ষা দেয়।

তিনি বলেন, ছাগল ছানাটির মায়ের মৃত্যুর পর জীবনধারণ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল। গাভির বাটে ছাগল ছানার মুখ লাগিয়ে দিয়েছে তখন গাভিটি ফিরিয়ে দেয় নি। একই সঙ্গে নিজের বাচ্চা এবং ছাগলের বাচ্চাকে দুধ খাইয়ে বড় করছে গাভিটি।

About desk

Check Also

মর্মান্তিক ঘটনাঃ কলেজে ভর্তি হয়ে বাড়িতে ফেরা হলো না শিক্ষার্থীর

গোপালগঞ্জে কলেজে ভর্তি হয়ে আর বাড়িতে ফেরা হলো না শিক্ষার্থী আবু হামজার। শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *