Breaking News

‘কেন যে সেদিন ভুলটা করলাম, এই আফসোস প্রতিটা মুহূর্তে কাঁদায়’

দীর্ঘদিন ধরে যুক্তরাজ্যে রয়েছেন প্রয়াত নায়ক সালমান শাহর মা নীলা চৌধুরী। সেখানেই আজ ছেলের ২৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বাসায় ও মসজিদে দোয়ার ব্যবস্থা করেছেন। কোরআন খতম দিয়েছেন।

তরুণ বয়সের ছেলেকে হারাবেন, কখনোই কল্পনা করেননি তিনি। ছেলেকে বেশির ভাগ সময়ই দেখেছেন হাসিখুশি। তবে মন খারাপ থাকলে বুঝতে পারতেন। কিন্তু মাকে কিছুই বুঝতে দিতেন না সালমান শাহ। নিয়মিত শুটিং নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন।

নীলা চৌধুরী বলেন, ‘কদিন ধরেই শরীর খারাপ। হাসপাতালে ছিলাম। এই দিনে আমি ভালো থাকি না। এভাবে আমার ইমনের চলে যাওয়ার কথা নয়। আমি কেন আগেই সব জানতে পারলাম না। ২৫ বছর ধরে আমার এই একটাই আক্ষেপ। আমি যদি ভুলেও সেদিন জানতে পারতাম, তাহলে ওকে আমার কাছে নিয়ে আসতাম। অথবা আমি ওর কাছে গিয়ে থাকতাম। আমি ওর পিছু ছাড়তাম না। আমার শুধুই মনে হয়, আমি তো এমনিতেও ওর বাসায় যেতাম, সেদিন তার বাসায় কেন গেলাম না। আমাদের সঙ্গে তাকে কেন রাখলাম না। এটাই আমাকে কষ্ট দেয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘কেন জানি না সেদিন ইমনকে দেখে বারবার ওর শৈশবের সঙ্গে মিলাচ্ছিলাম। তখনো ইমন ওই রকমই ছিল। চুল বড় রাখলে ওকে প্রায়ই মজা করে বলতাম, তোকে মেয়ের মতো লাগছে। কারণ, ওর নাক, মুখ, হাত অনেকটা আমার মতো ছিল। ও খুব একটা রাগত না। যখন রাগত, তখন ওর চোখ-মুখ লাল হয়ে যেত। সে জন্য ও রাগ করে বা অভিমান করে, এমন কিছু করতাম না। সেই ছেলে আমাদের ছেড়ে যাবে, বুঝতে পারলে লাইব্রেরি থেকেই যেতে দিতাম না। এই আফসোস আমাকে প্রতিটা মুহূর্তে কাঁদায়।’

About desk

Check Also

মর্মান্তিক ঘটনাঃ কলেজে ভর্তি হয়ে বাড়িতে ফেরা হলো না শিক্ষার্থীর

গোপালগঞ্জে কলেজে ভর্তি হয়ে আর বাড়িতে ফেরা হলো না শিক্ষার্থী আবু হামজার। শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *