Breaking News

অসুস্থ শিক্ষার্থীদের অনুপস্থিত হিসেবে বিবেচনা করা হবে না

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বা দেহে কোনো ধরনের উপসর্গের কারণে শিক্ষার্থীরা সশরীরে ক্লাসে উপস্থিত হতে না পারলে তাদেরকে ‘অনুপস্থিত’ গণ্য করা হবে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। তবে সেক্ষেত্রে দেখাতে হবে উপযুক্ত প্রমাণ। বিষয়টি নিয়ে অনেক অভিভাবকের উদ্বেগের কারণে এই কথা জানিয়েছেন তারা।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মাহবুব হোসেন বলেন, যদি কোনো শিক্ষার্থী তার পরিবারের কোনো সদস্যের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কারণে ক্লাসে আসতে না পারে, সেক্ষেত্রে তাকে অনুপস্থিত হিসেবে বিবেচনা করা হবে না। কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে পরিবারের সদস্যের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার প্রমাণ জমা দিতে হবে।

এ ক্ষেত্রে করোনাভাইরাসের পজিটিভ রিপোর্টকে প্রমাণ হিসেবে গ্রহণ করা হবে বলে জানান সচিব।
এ ছাড়াও, শিক্ষার্থীরা প্রয়োজনে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে বা আইসোলেশনে থাকতে পারবে এবং তাদেরকে অনুপস্থিত হিসেবে গণ্য করা হবে না।

এদিকে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর স্কুলের প্রধান শিক্ষকদের কাছে একটি স্বাস্থ্য নির্দেশনার সাধারণ পরিচালন পদ্ধতি (এসওপি) পাঠিয়েছে। এসওপি অনুযায়ী, শিক্ষার্থীদের বলা হয়েছে- তারা যেন যেকোনো ধরনের অসুস্থতার কথা দ্রুত অভিভাবক ও শিক্ষক-শিক্ষিকাদের জানায়। কোনো জরুরি কারণ ছাড়া শ্রেণীকক্ষের বাইরে না যায়।

এসওপিতে অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলা হয়েছে, পরিবারের কোনো সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে তারা যেন দ্রুত এই তথ্যটি প্রধান শিক্ষককে জানান। একইসঙ্গে, শিশুদের বাইরের খাবার খেতে নিরুৎসাহিত করেন।

About desk

Check Also

শিক্ষকদের জন্য জরুরী নির্দেশনাঃ শিক্ষা অধিদপ্তরের

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পাঠ উন্নয়নে শিক্ষকদের জন্য ১১ দফা নির্দেশনা জারি করেছে প্রাথমিক শিক্ষা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *